শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন খালেদা জিয়া

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছেন।আজ রবিবার হাসপাতালসহ একাধিক  সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে দলের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কেউ নিশ্চিত করতে পারেননি বিষয়টি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খালেদা জিয়ার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট দেখেছেন,বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। উনি ব্যক্তিগতভাবে গুলশান কার্যালয়ে যোগাযোগের চেষ্টা করছেন। এখন পর্যন্ত তিনি নিশ্চিত হতে পারেননি।জানা গেছে, কয়েক দিন ধরে খালেদা জিয়া জ্বরে ভুগছেন। তাই তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন কিনা জানতে শনিবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানের বাসভবন ফিরোজা থেকে তার রক্তের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তারপর ঢাকার অন্যতম একটি হাসপাতালে তার করোনা পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।সেই পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে।খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজায় যান,আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা জানান, শনিবার বিকেল ৩টার দিকে ওই হাসপাতালের করোনা ইউনিট থেকে একজন টেকনোলজিস্ট।এর আগে ওই হাসপাতালের সাথে যোগাযোগ করেন খালেদার জিয়ার পরিবার ও তার চিকিৎসার সাথে জড়িত সংশ্লিষ্টরা। রক্তের নমুনা নেওয়ার সময় খালেদা জিয়ার ভাগ্নে ডা. মামুনও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। করোনা পরীক্ষার পাশাপাশি তার ডায়াবেটিস টেস্টের জন্যও নমুনা নেওয়া হয়। গোপনীয়তার সাথে এই কার্যক্রম পরিচালিত হয়।তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খালেদা জিয়ার করোনা টেস্টের রিপোর্টের একটি কপি ভাইরাল হয়েছেন। সেটি কিউআর কোড স্ক্যান করলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের যে ওয়েবসাইট থেকে পরীক্ষার ফল জানা যায় সেখানে যায় তারা। সেখানে এই কপিটি দেখা যায়। রিপোর্টে যে ফোন নম্বরটা দেওয়া হয়েছে, সেটি বিএনপির চেয়ারপারসনের মেডিকেল টিমের টেকনোলজিস্ট মো. সবুজের নাম্বার। তবে তিনি খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হওয়া বা না হওয়া বিষয়ে কিছু জানেন না।খালেদা জিয়া সরকারের নির্বাহী আদেশে জামিনে এখন রয়েছেন। ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি দুর্নীতির মামলায় তাকে কারাগারে যেতে হয়েছিলেন। দুই বছরের বেশি সময় কারাগারে থাকার পর গত বছর করোনা মহামারির কারণে পরিবারের আবেদনে তাকে ছয় মাসের জামিনে মুক্তি দেয় সরকার, যা তিন দফায় বাড়ানো হয়েছেন। বর্তমানে তিনি বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তার সাথে পরিবারের সদস্য ও ব্যক্তিগত চিকিৎসক বাদে অন্য কেউ দেখা করতে পারেন না।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles