রবিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২১

কাবুলের মার্কিন দূতাবাসের সকল কর্মীকে সরিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তান দখল করার পর মার্কিন সেনাসহ সকল বিদেশি সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। এরইমধ্যে দেশ থেকে পালিয়ে গেছেন আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনিসহ মন্ত্রিপরিষদের অনেকে। এই পরিস্থিতিতে কাবুলের মার্কিন দূতাবাসের সব কর্মীকে সরিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

আজ সোমবার মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের একজন মুখপাত্র বলেছেন, কাবুলে তাদের দূতাবাস থেকে মার্কিন কর্মীদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি নিশ্চিত করতে পারি যে দূতাবাসের সকল কর্মীদের নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। তারা সবাই হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের চত্বরে আছে। 

এদিকে একজন মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন, বেশিরভাগ পশ্চিমা কূটনীতিকরা এখন কাবুল ত্যাগ করেছেন, কিন্তু কিছু সহায়ক কর্মী শহরে রয়েছেন। গতকাল
রোববার থেকে তালেবানরা শহরে প্রবেশের পর থেকে হেলিকপ্টারগুলো দূতাবাস জেলা থেকে কাবুল বিমানবন্দরে কূটনীতিকদের নিয়ে যাচ্ছে।

বিবিসি জানিয়েছে, মার্কিন সেনারা বিমানবন্দর পাহারা দিচ্ছে। সেই সঙ্গে কাবুলের অন্য এলাকাগুলো থেকে গোলাগুলির শব্দ আর সহিংসতার খবর পাওয়া যাচ্ছে।

তালেবানের রাজনৈতিক কার্যালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ নায়েম জানান, তারা অতিদ্রুত আফগানিস্তানের নতুন সরকার সম্পর্কে সবকিছু পরিষ্কার করে জানাবে। মোহাম্মদ নায়েম বলেন, আমরা যেখানে পৌঁছাতে চেয়েছিলাম সেখানে পৌঁছেছি। আমরা মানুষের জন্য স্বাধীনতা এনেছি। 

গতকাল রোববার বিকেলে কাতারের দোহায় অবস্থানরত তালেবান মুখপাত্র সুহায়েল শাহীন বলেন, ‘আফগানিস্তানে যারা এর আগে আগ্রাসীদের জন্য কাজ করেছে, সাহায্য করেছে বা এখন যারা দুর্নীতিবাজ কাবুল প্রশাসনের বিভিন্ন পদে আসীন রয়েছেন তাদের সবার জন্য ইসলামিক আমিরাত দরজা খোলা রেখেছে এবং ক্ষমা ঘোষণা করেছে।’
এদিকে আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল সাত্তার মির্জা কওয়াল বলেছেন, আফগান জনগণকে চিন্তা করতে হবে না। শহরে কোনো হামলা হবে না এবং শান্তিপূর্ণভাবে অন্তর্বর্তী সরকারের কাছে ক্ষমতার হস্তান্তর হবে।
 

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles