সোমবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১

নতুন বছরে ঢালিউডে নতুন মুখ

ঢালিউডের সময়কাল ভালো যাচ্ছে না। ভালো সিনেমা নেই, একের পর এক বন্ধ হয়ে যাচ্ছে প্রেক্ষাগৃহ। এরই মধ্যে যে ছবিগুলো মুক্তি পাচ্ছে, সেগুলোতে ঘুরেফিরে একই মুখ দেখতে হচ্ছিল বারবার। এসব সংকটের মধ্যে ২০২১ সালে ঢালিউড পেতে যাচ্ছে বেশ কয়েকটি নতুন মুখ। কেন্দ্রীয় চরিত্রের নতুন অভিনয়শিল্পী হিসেবে পাওয়া যাবে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, নিশাত সালওয়া, দীঘি, এ কে আজাদ আদর, রিয়াদ রায়হানসহ বেশ কয়েকজনকে। ২০১৮ সালে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-এ চ্যাম্পিয়ন হন ঐশী। এরই মধ্যে মিশন এক্সট্রিম, মিশন এক্সট্রিম টু, আদম ও রাতজাগা ফুল নামে চারটি ছবির শুটিং শেষ করেছেন তিনি। মিশন এক্সট্রিম মুক্তি পেতে যাচ্ছে এ বছরের ঈদুল ফিতরে। বাকিগুলো আসবে পর্যায়ক্রমে। ঢালিউডে নিজের অভিষেকে আনন্দের পাশাপাশি টিকে থাকাকে বড় চ্যালেঞ্জ মনে করছেন ঐশী। তিনি বলেন, ‘অনেক কিছু্ নিয়েই সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি। শুধু দেখতে সুন্দর হলেই এখানে টেকা যায় না। এ জায়গাটিকে বুঝতে হয়, জানতে হয়, উপযোগী হতে হয়, মানিয়ে কাজ করতে হয় এবং সর্বোপরি ভালো অভিনয় দিয়ে টিকে থাকতে হয়। সেই চেষ্টাই চালিয়ে যাচ্ছি।’ ২০১৮ সালের মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতার প্রথম রানারআপ সালওয়া। এই তুমি সেই তুমি, বীরত্ব ও স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা নামে তিনটি ছবির শুটিং শেষ তাঁর। চলতি বছরই পর্যায়ক্রমে মুক্তি পাবে এগুলো। অভিষেক প্রসঙ্গে সালওয়া বলেন, ‘ভালো লাগা থেকেই সিনেমায় আসা। তবে ছবি মুক্তির পর দর্শকের গ্রহণযোগ্যতার ওপর নির্ভর করবে এখানে আমার টিকে থাকা না-থাকা।’ শিশুশিল্পী হিসেবে ভীষণ জনপ্রিয় ছিলেন দীঘি। কাবুলিওয়ালা, দাদিমা, চাচ্চু, চাচ্চু আমার চাচ্চু, এক টাকার বউসহ বহু ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। ১২ মার্চ মুক্তি পাচ্ছে বড় হয়ে যাওয়া দীঘি অভিনীত তুমি আছো তুমি নেই ও টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই নামে দুটি ছবি। এ দুটি ছবির মধ্য দিয়েই শিশুশিল্পী থেকে ‘নায়িকা’ হিসেবে অভিষেক হতে যাচ্ছে তাঁর। দীঘি বলেন, ‘অনেক দিন ধরেই নতুন মুখ নেই ঢাকার সিনেমায়। নতুন নতুন শিল্পীদের আগমন সিনেমার জন্য ভালো, দর্শকের জন্যও ভালো। একই মুখ দীর্ঘদিন ধরে দেখছেন দর্শক। নতুন মুখগুলো সিনেমার দর্শকদের ভিন্ন স্বাদ জোগাবে।’ কিন্তু এখানে টিকে থাকা নিয়ে কী ভাবছেন দীঘি? তিনি বলেন, ‘ছবি মুক্তি পাওয়ার পর দর্শকেরা নতুনদের কাজ পছন্দ করলে পরিচালকেরা তাঁদের নিয়ে আগ্রহী হবেন। পছন্দ না হলে ছিটকে যাবেন।’ ২০১৪ সালে চ্যানেল আই আয়োজিত ফেয়ার অ্যান্ড হ্যান্ডসাম: দ্য আলটিমেট ম্যান চ্যাম্পিয়ন এ কে আজাদ আদর। চলতি বছর ‘নায়ক’ হিসেবে সিনেমায় অভিষেক হবে তাঁর। স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা, চিৎকার, মুক্তি ও লাইভ নামে চারটি ছবির শুটিং শেষ করেছেন তিনি। ২০২১ সালে পর্যায়ক্রমে মুক্তি পাবে এগুলো। প্রতিক্রিয়া জানিয়ে আদর বলেন, ‘বড় প্রত্যাশা নিয়ে সিনেমায় এসেছি। আমি জানি, অভিনয় দিয়েই এখানে টিকে থাকতে হবে। অন্য কোনো পথ নেই। যে কাজগুলো শেষ করেছি, সব কাজ নিয়েই আশাবাদী আমি।’ অভিষেকের তালিকায় রয়েছেন আরও অনেকে। এই তুমি সেই তুমি ছবিতে ‘নায়ক’ হিসেবে অভিষেক হচ্ছে ফেয়ার অ্যান্ড হ্যান্ডসাম: দ্য আলটিমেট ম্যান-এর সেরা পাঁচ প্রতিযোগীর অন্যতম রিয়াদ রায়হানের। ২০১৮ সালের স্বপ্নজাল দিয়ে অভিষেক হয়েছিল ইয়াশ রোহানের, কিন্তু নিয়মিত হননি তিনি। এ বছর ঢালিউডে নবযাত্রা হবে তাঁর। পরান ও আদম নামে দুটি ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে দেখা যাবে তাঁকে। তবে এ তরুণদের টিকে থাকতে হলে দরকার ভালো পরিচালক ও প্রযোজক। নয়তো অঙ্কুরেই শেষ হয়ে যেতে পারে তরুণ অভিনয়শিল্পীদের স্বপ্ন ও সম্ভাবনা। আদর মনে করেন, তাঁদের ছবি মুক্তির খবর দর্শকের কাছে পৌঁছাতে হবে। এ জন্য দরকার যথাযথ প্রচারণা ও কৌশল। অন্যদিকে ঐশী মনে করেন, ভালো শিল্পী বেশি থাকলে কাজও হবে বেশি, বাড়বে প্রতিযোগিতা, ইন্ডাস্ট্রি হবে রমরমা।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles