শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে নেওয়ার পরামর্শ চামড়া খাতকে

শতভাগ কাজ শেষ না হলেও ১৯ বছর পর চামড়া শিল্পনগরী প্রকল্পের সমাপ্তি টানল সরকার। ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন বলছে, সংস্কার ও বাকি কাজগুলোর জন্য লাগবে অর্থ বরাদ্দ। তবে অর্থনীতিবিদদের পরামর্শ, রপ্তানি খাত হওয়ায় সমস্যার স্থায়ী সমাধানে এ খাতকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে আনতে হবে।

পরিবেশবান্ধব চামড়া শিল্পনগরী গড়ে তুলতে সাভারের হেমায়েতপুরে ধলেশ্বরীর পাড়ে ২০০৩ সালে একটি প্রকল্প নেয় সরকার। অবশেষে প্রায় ১৯ বছর পর প্রকল্পের সমাপ্তি টানা হয় চলতি বছরের জুনে। যদিও এখনও শতভাগ কাজ শেষ করতে পারেনি বিসিক।

ট্যানারি মালিকদের অর্থায়নে কোম্পানিটি পরিচালনার জন্য গঠন করা হয়েছে চামড়া শিল্পনগরী সংশ্লিষ্ট সরকারের বিভিন্ন দপ্তর ও ট্যানারি ব্যবসায়ীদের সমন্বয়ে ১৩ সদস্যের বোর্ড।
শিল্পনগরীর দায়িত্বভার কোম্পানির হাতে ন্যস্ত হলেও সিইটিপিসহ অনেক স্থাপনাই বিএমআরইর মাধ্যমে শতভাগ কার্যকর করতে হবে মনে করে ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন। একই সাথে সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট নির্মাণে আবারো টাকা কোম্পানিকে ফিরে দেওয়ার দাবি জানান সংগঠনটির মহাসচিব মো. সাখায়াত উল্লাহ।
তিনি বলেন, কোম্পানির জন্য সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে, সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবস্থা রাখা হয়নি। এ কারণে কোম্পানি এটা নিয়ে খুব হতাশ। এদিকে, পরিবেশবান্ধব না হওয়া ও কমপ্লায়েন্স সুবিধা না থাকায় বৈশ্বিক প্ল্যাটফর্ম লেদার ওয়ার্কিং গ্রুপ, এলডব্লিউজির সার্টিফিকেট পাচ্ছে না চামড়া শিল্পসংশ্লিষ্টরা।
 
অর্থনীতিবিদ মোহাম্মদ আবু ইউসুফ বলেন, সাসটেনঅ্যাবল ডেভেলপমেন্ট গোলসের ক্ষেত্রে আমরা কিন্তু একটা অ্যাকশন প্ল্যান ডেভেলপ করেছি। ঠিক আমি মনে করি, চামড়া খাতের গুরুত্ব বিবেচনা করে একটা স্থায়ী সমাধান দরকার।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles