রবিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২১

বাঁচা-মরার লড়াইয়ে আজ ওমানের মুখোমুখি হচ্ছে বংলাদেশ

প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের কাছে লজ্জাজনক হার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে এই হার বাংলাদেশকে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে ফেলে দিয়েছে। সুপার টুয়েলভে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখাতে হলে ওমানের বিপক্ষে  জিততেই হবে বাংলাদেশকে।  আজ মঙ্গলবার ওমানের আল আমিরাত ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি। বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হবে ম্যাচটি।  অবশ্য বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দারুণ জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে এখনো সেই রুপে পাওয়া যায়নি। অবশ্য এই ধরণের উইকেটে আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলতে হবে বলে স্বীকার করেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক  মাহমুদউল্লাহ।

প্রথম ম্যাচে  হারের জন্য ব্যাটিংকে দায়ী করেন তিনি। ওমানের বিপক্ষে ‘বাঁচা-মরার’  ম্যাচে কিছু পরিবর্তন আনা প্রয়োজন বলে মনে করেন মাহমুদউল্লাহ। এ সম্পর্কে মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘আমাদের ব্যাটিং ছিল খুবই হতাশার। এখন আমাদের আরও ভালো ব্যাটিং করতে হবে। পরিস্থিতি যাই হোক আমাদের আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলতে হবে। ব্যাটিং লাইন-আপে নয় নম্বরে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন পর্যন্ত  আমাদের ব্যাটিং গভীরতা রয়েছে। আজ আমাদের কিছু পরিবর্তন নিয়ে ভাবতে হবে।’ বাংলাদেশ অধিনায়ক আরও বলেন, ‘ম্যাচ  হারের পর অনেক কিছুই উঠে আসে। আমি মনে করি, আমরা ভালো খেলিনি। কিন্তু আমরা একটি ভালো টি-টোয়েন্টি দল। আমাদের সামর্থ্য আছে। আমরা যখন আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলি, আমরা ম্যাচ জিততে পারি।’ এর আগে একবার ওমানের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ।

২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে ওমানকে বৃষ্টি আইনে ৫৪ রানে হারিয়েছিল বাংলাদেশ।  বিশ্বকাপের আগে টানা দুই ম্যাচ হারে বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরেছে। শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দুটি অফিসিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচের পর, বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ডের কাছে হেরেছে বাংলাদেশ। ওমান নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনিকে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে আত্মবিশ্বাসে টগবগ করছে। অবশ্য টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স খুব একটা ভালো নয়। এখন পর্যন্ত ১১৪ ম্যাচে ৪১টি জিতেছে তারা। ৭১ ম্যাচে হার ও দুটি পরিত্যক্ত হয়। আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ২৬ টি ম্যাচ খেলেছে এবং মাত্র পাঁচটিতে জিতেছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে বাছাই পর্ব থেকেই চারটি জয় এসেছে।

বাংলাদেশ দল : মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার, লিটন দাস, আফিফ হোসেন, নাঈম শেখ, নুরুল হাসান সোহান, শামীম হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, রুবেল হোসেন, শরিফুল ইসলাম, মাহেদী হাসান, নাসুম আহমেদ ও তাসকিন আহমেদ।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles