মানসিক চাপ ও রাগ কমাতে যে খাবারগুলো খাবেন

করোনা আমাদের একটা জিনিস শিখিয়ে দিয়ে গিয়েছে আর তা হলো, আমাদের যেকোনো বিষয়ের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে সব সময়।  আর এই সময়ে বিশেষ করে মানসিক স্বাস্থ্যও ভালো রাখা জরুরি। এই সময়ে হুটহাট আপনি হয়তো রেগে যাচ্ছেন বা আপনার মেজাজ খারাপ হচ্ছে। তবে এমন কিছু ভিটামিন আছে, যা আপনার রাগকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে। পুষ্টিবিদদের মতে, আমাদের ব্রেনের ভিটামিন দরকার ভালোভাবে কাজ করার জন্য। আপনার শরীরে যদি ভিটামিনের ঘাটতি হয়, তাহলে আপনার মন-মেজাজের ওপরও প্রভাব পড়বে। এতে করে হতাশা, রাগ, মুড সুইংয়ের মতো সমস্যা দেখা দেয়। চলুন এমন কিছু খাবারের কথা জেনে নেওয়া যাক, যা ব্রেন ভালো রাখতে সাহায্য করবে।

  • ভিটামিন বি : ডিম, দুগ্ধজাতীয় খাবার, শিমের বীচি, সবজি, মাংস, ভিটামিন ‘বি’-এর ভালো উৎস। প্রতিদিন সকালে এজাতীয় খাবার খেতে হবে।  ভিটামিন ‘বি’ শর্করার মাত্রাকে ঠিক রাখতে সাহায্য করে। এতে করে হতাশা, উদ্বেগ হ্রাস পায়।
  • ভিটামিন ডি : সূর্যালোক, ডিমের কুসুম, তৈলাক্ত মাছ ও লাল মাংস। ভিটামিন ‘ডি’ আপনার মস্তিষ্ককে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে এবং মানসিক অসুস্থতার সম্ভাবনাও হ্রাস করে। এটিতে হরমোনজাতীয় জৈব রাসায়নিক পদার্থ রয়েছে, যা মস্তিষ্কের ক্রিয়াকলাপ ঠিক রাখতে সহায়তা করে।
  • ভিটামিন সি :  কমলা, স্ট্রবেরি, ব্রোকলি, মরিচ, শাক, কিউই  এর ভালো উৎস। ভিটামিন ‘সি’ খেলে শরীর ভালো থাকে। ভিটামিন সি ত্বকের জন্য ভালো। এই ভিটামিন আপনার স্নায়ুতন্ত্রকে জারণ ক্ষতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করতে পারে। ভিটামিন ‘সি’ শারীরিক এবং মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে।
  • ম্যাগনেসিয়াম : কুইনা, গম, পালংশাক, কাজুবাদাম, ডার্ক চকোলেট, মটরশুঁটি ম্যাগনেসিয়ামের ভালো উৎস। দিনে বা রাতে যেকোনো সময় আপনি এই জাতীয় খাবার খেতে পারেন। এটি আপনার মেজাজের পাশাপাশি মস্তিষ্কের ক্রিয়া বজায় রাখতে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তা ছাড়া এটি উদ্বেগ কমাতেও সহায়তা করে। ম্যাগনেসিয়ামের অভাব হতাশার ঝুঁকি বাড়ায়।
  • সেলেনিয়াম :  সিফুড, সিরিয়াল এবং শস্য, দুগ্ধজাতীয় পণ্য সেলেনিয়ামের ভালো উৎস। এটি হতাশা ও উদ্বেগের ঝুঁকি কমায়। যেকোনো সময় এ জাতীয় খাবার খাওয়া যায়।
  • এল থ্যানাইন : চাপাতা এল থ্যানাইনের ভালো উৎস। প্রতিদিন ২০০ মিলিগ্রাম করে ঘুমাতে যাওয়ার আগে খাওয়ার চেষ্টা করুন। এটি মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে এবং সেই সঙ্গে স্মৃতিশক্তি ও মনোযোগ বাড়ায়।
  • গ্লাইসিন : মাছ, মাংস, দুগ্ধজাতীয় খাবার গ্লাইসিনের অন্যতম উৎস। ঘুমাতে যাওয়ার আগে এই খাবারগুলো খাওয়ার চেষ্টা করুন। এটি মস্তিষ্কে শান্ত প্রভাব তৈরি করে স্ট্রেসের প্রতি আপনার দেহের প্রতিরোধক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে। এটি ঘুম ভালো করে এবং সেই সঙ্গের উদ্বেগ কমায়।

সুতরাং আপনি যদি ইদানীং রাগ বেশি ও মেজাজ খিটখিটে হওয়ার সমস্যায় ভুগে থাকেন, তবে এই ভিটামিনগুলো আপনার খাদ্যতালিকায় রাখুন।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
3,324FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles