মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২১

মুকসুদপুরে মন কেড়েছে ভাসমান রেস্তোরা

ঈদুল আযহার মধ্যে গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলায় আটাডাঙ্গা বাওড়ের মাঝে পদ্মপাতার
ভাসমান রেস্তোরাটির শুভ উদ্বোধন হয়। মাত্র কয়েক দিনের মধ্যে সুনাম কুড়িয়েছে ভাসমান
রেস্তোরাটি।

ভাসমান রেস্তোরার কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, ১৫০টি প্লাাস্টিক ড্রামের উপর কাঠ ও লোহার সমন্বয়ে প্রস্তুত করা হয়েছে রেস্তোরাটি এবং রাতে বিভিন্ন রঙের আলোকসজ্জাও রয়েছে রেস্তোরাতে।

এখানে খাবারের তালিকায় রয়েছে কফি, লাচ্ছি, জুস, মিল্ক সেক, ফালুদা, বার্গার, পাস্তা, চাওমিন, ফ্রাই, স্যুপ। সেট মেন্যুর মধ্যে ফ্রাইড রাইস, ক্রিসপি চিকেন ফ্রাই, ভেজিটেবল, সফট ড্রিংকস ফাষ্টফুড জাতীয় খাবার।

মুকসুদপুর উপজেলার গোপিনাথপুর মাঝিবাড়ি চারঘাট ও পাথরাইল বাজার পয়েন্টে তাদের নিজস্ব বোটের মাধ্যমে রেস্তোরাটিতে যাওয়া বাবস্থা করেছেন সংশ্লিষ্টরা। রেস্তোরার উদ্যোক্তা শাহবুদ্দিন সরদার জানান, মুকসুদপুরে আটাডাঙ্গা বাওড়ে এ বছর নতুন করে পদ্মফুল বিস্তার লাভ করে। যা বিগত ৫০ বছরে দেখা মেলেনি। এই পদ্মফুলকে কেন্দ্র করে এ রেস্তোরা তৈরী করা। যা কয়েকজন যুবকের অক্লান্ত পরিশ্রমে বর্তমানে
বাস্তবে রুপ নিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এ রেস্তোরা তৈরীর পিছনে অনুপ্রেরণা ও সার্বিক সহোযোগিতায় অন্যতম ভূমিকায় রেখেছেন মুকসুদপুর সরকারি কলেজের প্রভাষক ও বাবস্থাপনা বিভাগের প্রধান মাহবুব হাসান সাগর। বর্তমানে মুকসুদপুর উপজেলা ভ্রমন পিপাসুদের জন্য কোন ভাল স্পট না থাকায় এ রেস্তোরা ব্যপক সাড়া ফেলেছে।

প্রাথমিক ভাবে এ রোস্তোরাটি নির্মাণ করতে ২০ লক্ষ টাকা খরচ হলেও আগামীতে ভ্রমণ পিপাসুদের কথা মাথায় রেখে আরো বড় পরিসরে করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন তারা। রেস্তোরায় আসা দর্শনার্থীরা জানায়, খাবারে মান
ভালো। বোটে ভ্রমণের বাবস্থা করায় নজর কাড়ছে ভাসমান এ রেস্তোরাটি।

নাহিদ পারভেজ জনি
মুকসুদপুর গোপালগঞ্জ

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles