শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১

সৌদি আরবের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে গুরুত্বারোপ

সৌদি আরবের জাজান প্রদেশের গভর্নর প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নাসের বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ-এর সাথে বৈঠক করেছেন রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার)। গতকাল জাজান প্রদেশের গভর্নর এর কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার) এ সময় বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের সৌদি আরবে ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও বিনিয়োগে আগ্রহের বিষয়টি গভর্নরকে অবহিত করেন। একইসাথে বাংলাদেশকে বিনিয়োগের জন্য অপার সুযোগের দেশ উল্লেখ করে সৌদি ব্যবসায়ীদেরও বাংলাদেশে বিনিয়োগের অনুরোধ জানান। এ সময় গভর্নর বাংলাদেশে বিনিয়োগের অবারিত সুযোগ রয়েছে জেনে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং জাজান প্রদেশের ইকনমিক সিটি ‘বেইশ (BAISH)’ এ বিনিয়োগ সুবিধা উল্লেখ করে এখানে বাংলাদেশের বিনিয়োগের অনুরোধ জানান। তিনি এ অঞ্চলের সমুদ্র বন্দর, পর্যটন এবং মানবসম্পদ খাতে সহযোগিতার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। গভর্নর সৌদি আরবের ভিশন-২০৩০ বাস্তবায়নে অভিবাসী বাংলাদেশীদের অবদানের কথা উল্লেখ করে তাঁদের ভূয়সী প্রশংসা করেন। জাজান এর গভর্নর এ অঞ্চলে বসবাসরত বাংলাদেশীদের কর্মদক্ষতা এবং অন্যান্যদের তুলনায় আইন কানুন মেনে চলার বিষয়টি উল্লেখ করে তাঁদের প্রশংসা করেন। রাষ্ট্রদূত সৌদি আরবের ভিশন ২০৩০ বাস্তবায়নে পর্যটন খাতে সহযোগিতার ওপর জোর দেন এবং দুদেশের পর্যটন কর্তৃপক্ষের মধ্যে পারস্পরিক যোগাযোগ বৃদ্ধি করে পর্যটক বিনিময়ের প্রস্তাব দেন। রাষ্ট্রদূত জাজান প্রদেশের সমুদ্র, পাহাড় ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন। রাষ্ট্রদূত জাবেদ পাটোয়ারী সৌদি আরবে প্রায় ২৩ লক্ষ বাংলাদেশি অভিবাসীর কর্মসংস্থানের জন্য বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ ও ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান এর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এছাড়া অভিবাসীদের করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা সহায়তা প্রদান ও বিনামূল্যে করোনা ভাইরাসের টিকা প্রদানের জন্য ধন্যবাদ জানান। রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী ইয়েমেন থেকে হুতি মিলিশিয়া কর্তৃক জাজান প্রদেশে বারবার আক্রমনের বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং সৌদি আরবের প্রতি বাংলাদেশের পূর্ণ সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেন। রাষ্ট্রদূত ভাতৃপ্রতিম দেশ দুটির মধ্যে দীর্ঘকালের বন্ধুত্ব ও সহযোগিতার বিষয়টি উল্লেখ করে আগামি দিনে তা আরো বৃদ্ধি পাবে বলে আশা প্রকাশ করেন। রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম(বার) গতকাল সৌদি আরবের জাজান প্রদেশের জাজান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর প্রেসিডেন্ট খালিদ বিন মোহাম্মদ সায়েগ এর সাথে বৈঠক করেন। এ সময় রাষ্ট্রদূত দুদেশের মধ্যে বিনিয়োগ, ব্যবসা বাণিজ্য ও আমদানি রপ্তানি বৃদ্ধির বিষয়ে আলোচনা করেন। রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশে বিনিয়োগের অপার সুযোগ রয়েছে উল্লেখ করে দুদেশের ব্যবসায়িক প্রতিনিধির পারস্পরিক যোগাযোগ বৃদ্ধি, ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দল প্রেরণ এবং দুদেশে অনুষ্ঠিত বিনিয়োগ ও বাণিজ্য মেলায় অংশগ্রহণের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন। রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, কৃষিপণ্য, ঔষধ, চামড়াজাত পণ্য, মৎস্য এবং পর্যটন খাতকে অত্যন্ত সম্ভাবনাময় উল্লেখ করে সৌদি ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও বাংলাদেশ হতে আমদানির আহবান জানান। জাজান চেম্বারের প্রেসিডেন্ট ভৌগোলিকভাবে এ অঞ্চলে সমুদ্র বন্দর ও আফ্রিকা মহাদেশের নিকটবর্তী হওয়ায় এখানে ব্যবসা বাণিজ্যের অপরিসীম সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান। চেম্বারের প্রেসিডেন্ট জাজান প্রদেশে বিনিয়োগ সুবিধা উল্লেখ করে এখানে বাংলাদেশি একক ও যৌথ বিনিয়োগকে স্বাগত জানান। রাষ্ট্রদূত জাবেদ পাটোয়ারী নিকটবর্তী সুবিধাজনক সময়ে সৌদি আরবে বিনিয়োগ মেলা, রোড- শো, বাংলাদেশ এক্সপো আয়োজনের বিষয়ে উল্লেখ করে সহযোগিতার অনুরোধ জানালে চেম্বারের প্রেসিডেন্ট এ বিষয়ে অবকাঠামোগত ও কারিগরিসহ সকল ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। বৈঠকে দুদেশের মধ্যে বিনিয়োগ, ব্যবসা বাণিজ্য ও আমদানি-রপ্তানি বৃদ্ধির লক্ষ্যে পারস্পরিক যোগাযোগ বৃদ্ধির বিষয়ে পুনরায় ঐক্যমত প্রকাশ করা হয় এবং আগামি দিনে ব্যবসা বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে দুদেশের মধ্যে একটি নতুন সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচিত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়। এ সকল বৈঠকে জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের দায়িত্বপ্রাপ্ত কনসাল জেনারেল এস এম আনিসুল হক ও রিয়াদ বাংলাদেশ দূতাবাসের ইকনমিক কাউন্সেলর মুর্তুজা জুলকার নাঈন নোমান উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles