বুধবার, জুন ২৩, ২০২১

পোশাক খাতের উৎপাদনশীলতা বাড়াচ্ছেন প্রকৌশলীরা

অভিজ্ঞ বাংলাদেশের পোশাকশিল্পে কর্মরত শ্রমিকদের দক্ষতা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে প্রকৌশল বিভাগ। উৎপাদন ব্যয় কমায় কারখানাগুলো দেখছে লাভের মুখ। আবার পদ্ধতি সহজ হওয়ায় উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির ছোট ছোট কৌশল বেশ আগ্রহ নিয়ে শিখেন শ্রমিকরা।

একটি তৈরি পোশাক কারখানার ভেতরে দেখা গেল করোনাকালীন স্বাস্থ্যবিধি মেনে উৎপাদন কাজে ব্যস্ত শ্রমিকরা। হঠাৎ চোখে পড়ল শ্রমিকের পাশে খাতা-কলম হাতে দাঁড়িয়ে আছেন একজন কর্মকর্তা। তিনি গভীর মনোযোগসহ শ্রমিকের কাজ পর্যবেক্ষণ করছেন আর মাঝে মাঝে কি যেন লিখছেন। উচ্চশিক্ষা শেষ করেছেন ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং অর্থাৎ শিল্প প্রকৌশল নিয়ে। তার কাজ শ্রমিকের কাজ সহজ করে দেওয়া। ব্যাখ্যাও দিলেন তিনি। কোনো রফতানি আদেশ পাওয়ার পর পণ্য পৌঁছে দেওয়া পর্যন্ত সময় ও শ্রমিক সংখ্যা হিসাব করে তারা একটি উৎপাদন কৌশল ও লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেন। হঠাৎ যদি দেখা যায় ঘণ্টাভিত্তিক লক্ষ্যমাত্রা অর্জন হচ্ছে না। তাহলে তারা উৎপাদন প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত না করে সমস্যা চিহ্নিত করার চেষ্টা করেন। এ জন্য তারা ওয়ান আওয়ার স্টাডি নামে এক ঘণ্টা ওই কাজ পর্যবেক্ষণ করেন। এতেই তারা বুঝতে পারেন সমস্যা কোথায় হচ্ছে আর কেনইবা লক্ষ্য অর্জন হচ্ছে না। 

কয়েকজন শ্রমিকের সঙ্গে কথা হল এমন ছোট ছোট কৌশল নিয়ে। তারাও খুশি। কারণ, এতে তাদেরই কাজে গতি বাড়ছে। আবার কাজ ভালো পারলে তাদের বেতন কাঠামো পরিবর্তনেরও সুযোগ তৈরি হয়। তারাও আশ্বাস্ত করলেন যে কারখানা কর্তৃপক্ষ তাদের কোনো রকম চাপ দেয় না, কলা-কৌশল শেখায়। 

এ প্রসঙ্গে কথা হয় নিট পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারকদের সংগঠন বিকেএমইএর প্রথম সহসভাপতি মোহাম্মদ হাতেমের সঙ্গে। বাজারে টিকে থাকতে তাই উৎপাদনশীলতা বাড়ানোর কোনো বিকল্প নেই তাদের সামনে। এমনকি অদক্ষ শ্রমিকের কারণেই বাংলাদেশ এখনও উচ্চমূল্যের পোশাকের বাজারে যেতে পারছে না। আর এতে ভুগতে থাকা কারখানাগুলো যেমন সুযোগ পায় ঘুরে দাঁড়ানোর, তেমনি লাভজনক অবস্থানে থাকা কারখানাগুলোর বাড়ে প্রতিযোগিতা সক্ষমতা।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles