বৃহস্পতিবার, মে ৬, ২০২১
সর্বশেষঃ
*আইনমন্ত্রী বলেন: খালেদা জিয়ার বিদেশ যেতে আবেদন দ্রুত নিষ্পত্তি হবে*করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন, সুশান্তের সহঅভিনেত্রী অভিলাষা পাতিল*লোকাল ট্রেন, রেস্তোরাঁ, শপিংমল,বার বন্ধ: পশ্চিমবঙ্গে*সংসদ ভবনে হামলার পরিকল্পনার অভিযোগ, ২ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ*আয়ারল্যান্ড এক কোটি ডোজ ভ্যাকসিন কিনছে: ফাইজারের*দূরে থেকেই জানা যাবে শরীরের সব খবর: ‘ই-স্কিন’ এর মাধ্যমে*আইন মন্ত্রণালয়ে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য আবেদন*এবার বলিউডের অন্তরা মিত্রর সঙ্গে গাইলেন, রিজভীর*রিটকারীদের ৭ দিনের মধ্য নিয়োগের নির্দেশ, এনটিআরসিএর গণবিজ্ঞপ্তি স্থগিত*প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ‘নবসৃষ্ট অবকাঠামো ও জলযান’ উদ্বোধন করলেন

‘ভবিষ্যতে বড় যুদ্ধ হবে মহাকাশে’ মহড়া দিল ফ্রান্স

স্টারওয়ার্স আর কল্পকাহিনি নয়। ভবিষ্যত যুদ্ধের জন্য মহাকাশেও নিজেদের শক্তি বাড়াচ্ছে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ। তবে ফ্রান্স যে মহড়া শুরু করেছে, তা ইউরোপে প্রথম। গোটা সপ্তাহজুড়ে মহাকাশে নিজেদের উপগ্রহ সুরক্ষিত রাখার মহড়া চালাচ্ছে ফ্রান্স। এর জন্য সামরিক বাহিনীর একটি উইং তৈরি করা হয়েছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে স্পেস কমান্ড। নতুন সেই স্পেস কমান্ডের প্রধান মিশেল ফ্রিডলিং জানিয়েছেন, মহাকাশে নিজের পরিকাঠামোর ‘স্ট্রেস টেস্ট’ শুরু হয়েছে। পৃথিবীর সমস্ত শক্তিশালী দেশেরই মহাকাশে নিজেদের উপগ্রহ আছে। উপগ্রহের সাহায্যে নানা পরিষেবা দেওয়া হয়। আবার এই উপগ্রহ সামরিক কাজেও ব্যবহার করা হয়। স্যাটেলাইটের মাধ্যমে অন্য দেশের ছবি সংগ্রহ করে গুপ্তচরবৃত্তি নতুন কিছু নয়। উপগ্রহের তথ্য সামরিক সমঝোতার ভাষায় ঢুকে পড়েছে।  বিশেষজ্ঞদের একাংশের বক্তব্য, ভবিষ্যতে বড় যুদ্ধ হলে সেই যুদ্ধ মহাকাশে হবে। এক দেশ অন্য দেশের স্যাটেলাইট আক্রমণ করবে। ফ্রান্স যে মহড়া শুরু করেছে, তা সে কথা মাথায় রেখেই। মহাকাশে ফ্রান্সের যেসব উপগ্রহ আছে, অঘটন ঘটলে তা কিভাবে রক্ষা করা হবে, তারই মহড়া শুরু হয়েছে। এই মহড়ার নাম দেওয়া হয়েছে ‘অ্যাস্টারএক্স’। ১৯৬৫ সালে এই নামেরই প্রথম উপগ্রহ মহাকাশে পাঠিয়েছিল ফ্রান্স। মহড়ার সময় ফ্রান্সের মহাকাশ সেনা শুধু সুরক্ষা নয়, প্রয়োজনে পাল্টা আক্রমণের ছকও সাজাবে। মহাকাশে অন্য দেশের কোন জিনিসগুলো ফ্রান্সের জন্য হুমকি তারও পর্যালোচনা করা হবে বলে জানানো হয়েছে। আমেরিকার স্পেস ফোর্স এবং জার্মানির স্পেস এজেন্সিও এই মহড়ায় অংশ নিয়েছে। গত সোমবার মহড়া শুরু হয়েছে। চলবে শুক্রবার পর্যন্ত। ২০১৯ সালে ফ্রান্সের স্পেস ফোর্স তৈরি হয়েছে। ফ্রান্স জানিয়েছে, ২০২৫ সালের মধ্যে তাদের মহাকাশ সেনাবাহিনীতে ৫০০ সেনা থাকবে। তার জন্য প্রায় পাঁচ বিলিয়ন ইউরো খরচ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে ফ্রান্স অ্যান্টিস্যাটেলাইট লেজার অস্ত্রও তৈরি করতে শুরু করেছে। ফ্রান্সের দাবি, ২০১৭ সালে রাশিয়ার একটি উপগ্রহ ফ্রান্স এবং ইতালির একটি স্যাটেলাইটের অত্যন্ত কাছে চলে আসে। সেই স্যাটেলাইটটি ফ্রান্সের উপগ্রহের ট্রান্সমিশন ইন্টারসেপ্ট করার চেষ্টা করেছিল বলে অভিযোগ। তবে রাশিয়া কখনোই সেই অভিযোগ স্বীকার করেনি।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

21,920FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles