শনিবার, জুন ১৯, ২০২১

এবারের মার্কিন নির্বাচনেও হস্তক্ষেপের চেষ্টা করেছে রাশিয়া বলছেন গোয়েন্দারা

২০১৬ সালের পর এবার ২০২০ সালে এসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কলকাঠি নাড়ানোর অভিযোগ উঠেছে রাশিয়ার বিরুদ্ধে। ২০১৬ সালে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিন্টনকে হারানোর চেষ্টা করেছিল বলে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল। এবার একই অভিযোগ উঠলো পুতিনের বিরুদ্ধে। মার্কিন গোয়েন্দাদের দাবি, মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করে জো বাইডেনকে হারাতে চেয়েছিলেন ভ্লাদিমির পুতিন ও তার কর্মকর্তারা। মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এমন দাবি করেছেন মার্কিন গোয়েন্দারা। তবে এ ব্যাপারে জো বাইডেন প্রশাসনের তরফ থেকে মুখ খোলা হয়নি। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মুখে কুলুপ এঁটে আছে রাশিয়া। মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্স কাউন্সিল-এর একটি প্রতিবেদনে গোয়েন্দাদের দাবি, ডোনাল্ড ট্রাম্প-ঘনিষ্ঠদের দিয়ে গত বছরের নির্বাচনের আগে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের ছেলের ওপর দুর্নীতির কালি ছেটানোর চেষ্টা করেছিল রাশিয়া। বাইডেনকে কলঙ্কিত করতেই এ কাজ করা হয়। পুরো বিষয়ে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পেরও সমর্থন ছিল বলে দাবি গোয়েন্দাদের। যদিও গোয়েন্দাদের মতে, ২০১৬ সালের নির্বাচনের মতো (২০২০ সালের) নির্বাচনী পরিকাঠামো ভেদ করার ক্ষেত্রে রাশিয়ার সাইবার জগতের জোরালো ভূমিকা ছিল না বলেই মনে করা হচ্ছে। ওই রিপোর্টে গোয়েন্দারা আরো জানিয়েছেন, জো বাইডেনের ছেলে হান্টার বাইডেনের ওপর তার ইউক্রেনের ব্যবসায়িক সংযোগ নিয়ে বিভ্রান্তিমূলক অভিযোগ তোলার চেষ্টা করেছিলেন ব্লাদিমির পুতিন এবং তার সহযোগীরা। গোয়েন্দারা বলছেন, আমাদের মতে ২০২০ সালের নির্বাচনে ভ্লাদিমির পুতিন তথা রাশিয়ার সরকার এই অপারেশনে অনুমোদন দিয়ে তা পরিচালনা করেছেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বাইডেন এবং ডেমোক্র্যাটিক পার্টিকে কলঙ্কিত করা, ট্রাম্পকে সমর্থন যোগানো-সহ আমজনতার ওপর নির্বাচনী প্রক্রিয়া নিয়ে বিশ্বাস টলিয়ে দেওয়ার পাশাপাশিযুক্তরাষ্ট্রে আর্থসামাজিক বিভাজন করার উদ্দেশ্য ছিল।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles