সোমবার, জুন ১৪, ২০২১

৭ বছরের সর্বোচ্চ রেকর্ড:তাপমাত্রায় পুড়ছে দেশ

তীব্র তাপপ্রবাহে পুড়ছে সারা দেশ। রোজার সঙ্গে তীব্র গরম যুক্ত হয়ে জনজীবনে ভোগান্তি চরমে উঠেছে। গতকাল রবিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা উঠেছে ৪১ দশমিক ৩ ডিগ্রিতে, যা রেকর্ড হয়েছে যশোরে। এটি গত সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড। রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের অন্তত পাঁচ জায়গায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির ওপরে উঠেছে।

বাদ নেই রাজধানীও। গতকাল রাজধানীতে গত সাত বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড হয়েছে। এ দিন রাজধানীর তাপমাত্রা ছিল ৩৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, এই তাপপ্রবাহ আরো তিন-চার দিন অব্যাহত থাকতে পারে। ৩০ এপ্রিলের পর বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টি হলে তাপমাত্রা কমবে।

বৃষ্টির হলে তাপমাত্রা অনেকটাই কমে আসবে। এ ছাড়া গত তিন-চার দিন সর্বোচ্চ তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। তবে রাজশাহী ও খুলনা অঞ্চলে কিছুটা বাড়তে পারে। সেটা সর্বোচ্চ এক ডিগ্রি পর্যন্ত।

অধিদপ্তরের তথ্যমতে, গতকালের আগে সর্বশেষ ২০১৪ সালের ঠিক এই দিনে অর্থাৎ ২৫ এপ্রিল চুয়াডাঙ্গায় এরচেয়ে বেশি ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল। তারপর থেকে গতকালেরটাই সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড। এ ছাড়া দেশের ইতিহাসে এযাবৎ সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড হচ্ছে ৪৪ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা ১৯৭২ সালের ১৮ মে তারিখে রাজশাহীতে রেকর্ড করা হয়েছে।

অধিদপ্তরের তথ্যমতে, গতকাল রাজধানীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগে ২০১৪ সালে রাজধানীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা উঠেছিল ৩৯ ডিগ্রিতে। তবে গতকালের চেয়ে বেশি তাপমাত্রা সর্বশেষ কবে রেকর্ড হয়েছে সেই তথ্য তাৎক্ষণিক জানাতে পারেনি অধিদপ্তরের দায়িত্বরত কর্মকর্তা। তবে ঢাকায় ইতিহাসের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হচ্ছে ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা ১৯৬০ সালের ৩০ এপ্রিল রেকর্ড হয়।

অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, রাজশাহী, যশোর, কুষ্টিয়া এবং খুলনা অঞ্চলের ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের অবশিষ্টাংশসহ ঢাকা, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, রংপুর, সিলেট ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

অন্যদিকে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। সোম ও মঙ্গলবার আবহাওয়ার অবস্থা সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

আগামী পাঁচ দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে এই সময়ের শুরুতে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

ঢাকায় সোমবার সূর্যোদয় ভোর ৫টা ২৮ মিনিটে এবং সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬টা ২৫ মিনিটে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles