শনিবার, জুন ১৯, ২০২১

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে হত্যা: নেশার টাকা না পেয়ে

নেশার টাকা না পেয়ে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা রুমা খাতুন নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে গলায় রশি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ ওঠেছে। শনিবার দিন রাতে বেনাপোল পোর্ট থানার শিবনাথপুর বারোপোতা গ্রামে নিহতের শ্বশুর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ কাউকে আটক করেনি।

স্থানীয়রা বলেন, আরিফুল একজন মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসাক্ত ছিল। নেশার টাকা না পেয়ে  রাতে তাকে কোনো এক সময় শ্বাসরোধ করে গলায় রশি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখে।

রুমার চাচাতো ভাই শামিম হোসেন বলেন, যেখানে লাশ ঝুলানো ছিল সেখানকার উচ্চতা ছিল মাত্র ৫ ফুট। রুমার পা মাটিতে ছিল। এতে ধারণা করা হয় তারা রুমাকে হত্যা করে সেখানে ঝুলিয়ে রেখেছিল। মাঝে মধ্যে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হতো। আমরা আমার বোনকে বাড়ি নিয়ে যেতাম। তখন আরিফুল রুমাকে হুমকি দিয়ে বলতো, ‘তুই যদি বাড়ি না আসিস তোর পিতাকে কুপিয়ে হত্যা করব।

তিনি আরো বলেন, থানার সামনে শিবনাথপুর বারোপোতা গ্রামের প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ী মোমিন মেম্বার ও তার ভাই আমাদের হুমকি দেয়, যাতে আমরা কোনো মামলা না করি। তারা বলে বেশি বাড়াবাড়ি করবি না-বাড়ি চলে যা।

ইউপি সদস্য মোমিন বলেন, মেয়েটি কি জন্যে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে তার কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে খুব মিল ছিল। সুরহাতাল রিপোর্টে সব পাওয়া যাবে।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। লাশটি উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে বুঝা যাবে এটা হত্যা না আত্মহত্যা।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles