শুক্রবার, জুন ১৮, ২০২১

হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত, বুড়িগঙ্গার জমির ওপর স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে

রাজধানীর কদমতলী থানাধীন মুন্সিখোলা এলাকায় একটি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের পক্ষে বুড়িগঙ্গা নদীর জমির ওপর স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। এ সময় প্রধান বিচারপতি বলেছেন, আমরা যদি নমনীয় হই তবে কোনোদিনই নদীর জমি দখলমুক্ত হবে না।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগ রবিবার এ আদেশ দেন। হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে বিআইডব্লিউটএ’র করা এক আবেদনে এ আদেশ দেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত।

কদমতলী থানাধীন মুন্সিখোলা এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীর জায়গা দখল করে ‘ম্যাক এন্টারপ্রাইজ’ নামক একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে পাথর ব্যবসা করার অভিযোগ আনে বিআইডব্লিউটিএ। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের নির্দেশনা অনুসারে নদীর জমি উদ্ধারের লক্ষ্যে ২০১৯ সালের ২২ জুলাই ‘ম্যাক এন্টারপ্রাইজ’ ২০ হাজার টন পাথর জব্দ করে তা নিলামে তোলে।

বিআইডব্লিউটিএ’র এই সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে ‘ম্যাক এন্টারপ্রাইজ’ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবুল কাশেম হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন। রিট আবেদনে বলা হয়, কদমতলি মৌজার ৫৯১, ৫৯২ এবং ৫৯৩ সিএস দাগের ২.৪০ একর সম্পত্তি ১৯৮৭ সালে সরকারের কাছ থেকে তারা কিনে নিয়েছে। এ রিট আবেদনে হাইকোর্ট ওইবছরের ২৯ অক্টোবর জমির দখলের উপর স্থিতিবস্থা বজায় রাখার আদেশ দেন। এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেছিল বিআইডব্লিউটিএ। আবেদনে বলা হয়, ঢাকার চারপাশের চারটি নদী বুড়িগঙ্গা, শীতলক্ষা, বালু তুরাগ রক্ষায় ২০০৯ সালে সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া রায়ের আলোকে নদীর জমি সরকার কারো কাছে বিক্রি বা হস্তান্তর করতে পারে না।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles