শনিবার, জুন ১৯, ২০২১

আম্ফানের চেয়েও বেশি ইয়াসের শক্তি

শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’ এর কেন্দ্রের ৬৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৮৯ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া আকারে ১১৭ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর ধারণা করছে ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’ আম্ফানের চেয়ে শক্তিশালী হবে।

মঙ্গলবার (২৫ মে) সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় অতিক্রমকালে খুলনা, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, ভোলা, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর ও চট্টগ্রাম জেলার এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণসহ ঘণ্টায় ৮০-১০০ কিলোমিটার বেগে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

অপরদিকে ঘূর্ণিঝড়টি উপকূল থেকে এখনও ৪৪৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। ঘূর্ণিঝড়টি ঘণ্টায় ১০-১৫ কিলোমিটার গতিবেগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও উড়িষ্যার দিকে অগ্রসর হচ্ছে। যদি গতিপথ পরিবর্তন না করে তবে ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশে আঘাত হানার সম্ভাবনা খুব কম বলে মনে করছেন আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ সাংবাদিকদের বলেন, ঝড়ের মূল অংশ যাবে ভারতের উড়িষ্যা ও পশ্চিমবঙ্গের ওপর দিয়ে। যেহেতু ঘূর্ণিঝড়ের রেডিয়াস অনেক বড় থাকে, তাই আমাদের দক্ষিণাঞ্চলের জেলা খুলনা, সাতক্ষীরা ও সুন্দরবনের ওপরেও কিছুটা আসবে। সারা দেশেই বৃষ্টি হবে, তবে বিচ্ছিন্নভাবে কোথাও কোথাও মাঝারী থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি বলেন, এটি সুপার সাইক্লোনে রূপ নেওয়ার সম্ভাবনা নেই। তবে আম্ফানের চেয়ে বাতাসের গতি বেশি হবে। ১৯৯১ সালের ঝড়ে আমাদের ক্ষতি বেশি হয়েছিল জোয়ারের কারণে।

পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ইয়াস উত্তর-উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর ও আরও ঘনীভূত হয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়েছে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles